05/07/2022

VAT Certificate ( Value added Tax) সার্টিফিকেট বা BIN (Business Identification Number) সার্টিফিকেট কেন ও কিভাবে করতে হয় এবং বৃত্তান্ত

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

প্রশ্নঃ VAT CERTIFICATE ( Value added Tax ) বা BIN (Business Identification Number) সার্টিফিকেট কি?

উত্তরঃ প্রতিটি ব্যবসায় একটি অদ্বিতীয় বিজনেস আইডেন্টিফিকেশন নম্বর থাকে। এই নম্বরটিকে বিন নম্বর বলা হয়। এই নম্বরটি পেতে হলে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড থেকে নিবন্ধন করতে হয়।

বাংলাদেশে প্রথমে ৯ ডিজিটের অ্যানালগ বিন সার্টিফিকেট ছিল। এরপর ২০১৮ সালে অনলাইন হওয়ার পর সেটা ১১ডিজিট করা হয়েছিল। বর্তমানে নতুন ভ্যাট আইনের অধীনে সকল বিন সার্টিফিকেট ১৩ ডিজিটের।
যে সকল ব্যবসায়ীরা পূর্বের কোন বিন সার্টিফিকেট নিয়েছেন, তাদেরকেও অবশ্যই ১৩ ডিজিটের এই বিন সার্টিফিকেট করে নিতে হবে। 

প্রশ্নঃ কোন ধরনের ব্যাবসার জন্য VAT ( Value added Tax) সার্টিফিকেট বা BIN (Business Identification Number) সার্টিফিকেট নিবন্ধন প্রয়োজন?

উত্তরঃ যে সকল ব্যবসায় বাৎসরিক আর্থিক লেনদেন ৩০ লক্ষ টাকার উপরে তাদের জন্য ভ্যাট নিবন্ধন প্রয়োজন। বছরে ৩০ লক্ষ টাকার কম লেনদেন হয় এমন প্রতিষ্ঠান অনলাইনে ভ্যাট নিবন্ধন করতে পারবে না বা প্রয়োজন নেই।

নতুন ভ্যাট (মূল্য সংযোজন কর) আইনের আওতায় অনলাইনে ভ্যাট নিবন্ধন করার শর্ত হচ্ছে – কোন প্রতিষ্ঠানে বছরে ত্রিশ লক্ষ টাকার বেশি লেনদেন হলে (৩০ লক্ষ ০১ টাকা থেকে ৮০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ৩% হারে ভ্যাট দিতে হবে) সেই প্রতিষ্ঠানের জন্য অনলাইনে ভ্যাট নিবন্ধন করে নিতে হবে এবং বছরে ৮০ লক্ষ টাকার উপরে লেনদেন হলে ১৫% হারে ভ্যাট প্রদান করতে হবে।

প্রশ্নঃ কাদের জন্য ভ্যাট নিবন্ধন বাধ্যতামূলক?

উত্তরঃ

*** করযোগ্য পন্য উৎপাদনকারী – যাদের বার্ষিক Turn over ৬০ লক্ষ টাকা।

*** করযোগ্য পন্য প্রদানকারী – যাদের বার্ষিক Turn over ৬০ লক্ষ টাকা।

*** আমদানিকারক

*** রপ্তানিকারক

*** ব্যাবসায়ী (পরিবেশক ,পাইকারী , খুচরা বিক্রেতা)


প্রশ্নঃ VAT ( Value added Tax) সার্টিফিকেট কেন করতে হয়?

  • ব্যবসা পরিচালনার জন্য (যে কোন ধরণের সার্ভিস প্রদান ব্যবসা)
  • টেন্ডারে অংশ গ্রহণ করার জন্য
  • ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালনার জন্য
  • আমদানি ও রপ্তানির সকল ক্ষেত্রে

প্রশ্নঃ VAT ( Value added Tax) সার্টিফিকেট বা BIN (Business Identification Number) সার্টিফিকেট করতে কি কি লাগবে?

উত্তরঃ ১. ট্রেড লাইসেন্স ২. জাতীয় পরিচয়পত্র ৩. টিন সার্টিফিকেট ৪. ব্যাংক সলভেন্সি সার্টিফিকেট ৫. লিমিটেড কোম্পানী বা পার্টনারশীপ ফার্ম হলে অন্যান্য ডকুমেন্টস

প্রশ্নঃ VAT ( Value added Tax) সার্টিফিকেট বা BIN (Business Identification Number) সার্টিফিকেট করার পর ভ্যাট রিটার্ন জমা_দিতে হবে কি না?

উত্তরঃ বিন সার্টিফিকেট করার পর আপনাকে প্রত্যেক মাসের ১৫ তারিখের মধ্যে গতমাসের বিক্রয়ের উপর হিসাব করে ভ্যাট রিটার্ণ জমা দিতে হবে। 
ভ্যাট আসুক বা না আসুক, রিটার্ণ আপনাকে অনলাইন এবং অফলাইনে অবশ্যই দাখিল করতে হবে। 

রিটার্ণ দাখিল না করলে অনলাইনে আপনার তৈরিকৃত সার্টিফিকেটের বিপরীতে অটোমেটিক মাসিক ১০ হাজার টাকা জরিমানা যুক্ত হয়ে যাবে। যেটা যে কোন সময় ভ্যাট অফিস আপনার থেকে আদায় করতে পারবে। 
ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন দিতে হয় বছরে একবার। আর ভ্যাট রিটার্ন দিতে হয় প্রতি মাসে একবার।

প্রশ্নঃ কিভাবে ONLINE এ VAT ( Value added Tax) সার্টিফিকেট বা BIN (Business Identification Number) সার্টিফিকেট নিবন্ধন করতে হয়?

উত্তরঃ ১।  প্রথমে www.vat.gov.bd ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন।

২। এখানে নিজের নামে প্রফাইল রেজিস্টার করার জন্য Sign-Up করুন। সাইন-আপ হচ্ছে ভ্যাট অনলাইন সিস্টেমের সাথে আপনার পরিচিতি তৈরি করা। অর্থাৎ নিজের নামে একটি একাউন্টি তৈরি করা। এ একাউন্ট দিয়েই ভ্যাট নিবন্ধন, দাখিলপত্র পেশসহ সকল প্রকার কাজ করতে হবে। এখানে আপনি ভ্যাট রেজিস্টার অনলাইন সিস্টেমে প্রবেশের জন্য User ID এবং Password পাবেন।
সাইন-আপের সময় যে বিষয় খেয়াল রাখতে হবে তা হলো : একটি প্রতিষ্ঠানের নিবন্ধন গ্রহণের জন্য Register as Taxpayer (Headquarter) নির্বাচন করতে হবে। প্রতিষ্ঠানের কেন্দ্রীয় নিবন্ধনের আওতায় শাখা নিবন্ধন নেয়ার পর কেবল সেই শাখার কাজ করার জন্য Register as Taxpayer (Branch) নির্বাচন করে সাইন-আপ করতে হবে। অপর দিকে যদি ভ্যাট কার্যক্রম পরিচালনার জন্য কোনো স্টাফকে কাজ করার দায়িত্ব প্রদান করা হয় সে ক্ষেত্রে Register as Taxpayer’s Employee হিসাবে সাইন-আপ করতে হবে।

৩। সাইন-আপ ফরমে ডাটা প্রদান করে Check বাটন চাপুন। কোনো ভুল থাকলে নির্দেশনা দিবে সেই মোতাবো সংশোধন করে Submit বাটন ক্লিক করে Submit করুন।

৪।নিশ্চয়তার একটি ইমেইল পাবেন। সেখানে ভেরিফাই করার একটি লিংক পাবেন। ওই লিংকে ক্লিক করে www.vat.gov.bd ওয়েবসাইটে যেয়ে লগইন করুন। প্রথম লগইন এর সময় নির্দেশনা অনুযায়ী পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করে নিতে হবে। আপনার পছন্দমত পাসওয়ার্ড সেট করে নিন।

৫। ভ্যাট নিবন্ধনের জন্য Forms হতে Mushak-2.1 Form সিলেক্ট করুন।

৬। লক্ষ্য করুন, মূসক-২.১ ফরমের প্রথম ঘরে আপনার টিআইএন এবং দ্বিতীয় ঘরে টিআইএন সনদে বিদ্যমান আপনার নাম দেখাচ্ছে। এ নামটি আপনার নিজের নাম। এবার মূসক-২.১ ফরমে অন্যান্য তথ্য দিন, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র স্ক্যান করে আপলোড করুন এবং ক্রমিক ৩ এর পদ্ধতিতে প্রথমে Check বাটন চাপুন। কোনো ভুল থাকলে নির্দেশনা অনুসরণ করে সংশোধন করে Submit বাটন ক্লিক করে Submit করুন।

৭।সাবমিট করার পর এক দুই দিন সময় নিতে পারে ভেরিফাই করার জন্য। নির্দেশনা অনুসরণ করুন। আপনার নিজের নামে ৯ ডিজিটের একটি Business Identification Number (BIN) সংবলিত মূসক-২.৩ ফরমে একটি সনদ তৈরি হয়ে যাবে। এটি আপনার ই-মেইলেও প্রেরন করা হবে। আপনার নিজের নামে তৈরিকৃত এই Business Identification Number (BIN) টি মাস্টার বিআইএন হিসেবে বিবেচিত হবে এবং এ বিআইএন এর জন্য আপনাকে কোনো কর প্রদান বা দাখিলপত্র পেশ করতে হবে না।

৮। এবার আপনার ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের নামে একটি বিআইএন গ্রহণের জন্য মূসক-২.২ ফরম পূরণ করতে হবে। এই ফরমে আপনার প্রতিষ্ঠানের নাম লিখুন। এই নামে আপনার নতুন শাখা বিআইএন ও সনদ তৈরি হবে। এ নামে আপনাকে কর প্রদান করতে হবে, হিসাব রাখতে হবে এবং দাখিলপত্র পেশ করতে হবে।

৯। আপনার যদি একাধিক নামে একাধিক ব্যবসায় থাকে তাহলে প্রতিটির জন্য একটি করে মূসক-২.২ পূরণ করে একই নিয়মে সেগুলোর জন্য আলাদা বিআইএন তৈরী করে নিন। সবগুলোর জন্যই কর দিতে হবে এবং দাাখিলপত্র পেশ করতে হবে।

১০। প্রতিষ্ঠানের ব্রাঞ্চের জন্য আলাদা লোককে ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব প্রদানের ক্ষেত্রে Register as Taxpayer (Branch) হিসাবে সাইন-আপ করা একজনকে সে দায়িত্ব দিন। কোনো শাখার জন্য কোনো স্টাফকে কাজ করার দায়িত্ব প্রদানের ক্ষেত্রে Register as Taxpayer’s Employee হিসাবে সাইন-আপ করে বিআইএন তৈরী করে নিতে হবে। 


১১। উদাহরণ: ধরি মি. রপিকের ২টি প্রোপ্রাইটরশীপ ব্যবসা আছে, যথা: (ক) হুদহুদ ট্রেডার্স এবং (খ) হুদহুদ বাংলা ট্রাভেলস। তিনি তার নিজের টিআইএন ব্যবহার করে সাইন-আপ করবেন এবং প্রথমে মূসক-২.১ ফরম পূরণ করে মি. রপিকের নামে একটি নিবন্ধন নিবেন। এটি মাস্টার বিআইএন। অতপর মূসক-২.২ ব্যবহার করে হুদহুদ ট্রেডার্স নামে একটি এবং হুদহুদ বাংলা ট্রাভেলস নামে আরেকটি বিআইএন তৈরী করে নিবেন। তার বিআইএন ৩টি হলেও ব্যবসায় ২টি। কর প্রদান করতে হবে ২টির এবং দাখিলপত্রও পেশ করতে হবে ২টির। নিজের নামের বিআইএনটির জন্য কিছু করতে হবে না।

১২। ব্যাক্তির টিআইএন এর সাথে বিআইএন সমন্বয় করার জন্য এ পদ্ধতি অনুসরণ করা হয়েছে।

ভ্যাট বিষয়ক আরো প্রশ্ন ও উত্তর পেতে

 

Get 30% off your first purchase

X
error: Content is protected !!