TIN ( Tax Identification Number) সার্টিফিকেট কি ও কেন করতে হয় এবং বৃত্তান্ত?

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

প্রশ্নঃTIN ( Tax Identification Number) সার্টিফিকেট কি ও কেন করতে হয় ?

ত্তরঃ TIN ( Tax Identification Number) সার্টিফিকেটঃ টিআইএন বা ট্যাক্স আইডেন্টিফিকেশন নাম্বার একটি বিশেষ নম্বর, যা দিয়ে করদাতাকে শনাক্ত করা হয়। ব্যবসা করতে হলে টিআইএন লাগে। টিআইএন সার্টিফিকেট হচ্ছে ১২ সংখ্যার একটি বিশেষ নম্বর, যা সংশ্লিষ্ট কর অফিস প্রদান করে। এই টিন সার্টিফিকেটের মাধ্যেমে করদাতাকে চেনার উপায় হচ্ছে যে তার প্রথম ৪টি সংখ্যা দ্বারা করদাতার অঞ্চল, মাঝের ৪টি সংখ্যা দ্বারা সেই করদাতার পদমর্যাদা এবং বাকি চারটি সংখ্যা দ্বারা করদাতাকে বিশেষভাবে চিহ্নিত করা হয়।

কেন প্রয়োজনঃ

প্রশ্নঃTIN ( Tax Identification Number) সার্টিফিকেট কত প্রকার?

প্রশ্নঃকখন টিন সার্টিফিকেট করবেন?

ত্তরঃ আপনি যদি মনে করেন যে বর্তমানে আপনার ইনকাম বছরে দুই লক্ষ পচাত্তর হাজার টাকার উপরে রয়েছে এবং আপনি এখন পুরুষ, তাহলে আপনি ইনকাম ট্যাক্স দিবেন, আপনাকে অবশ্যই ইনকাম ট্যাক্স ফাইল/ফরম পূরণ করার পূর্বে টিন সার্টিফিকেট করে নিতে হবে।

এখন প্রশ্ন হলো ইনকাম ট্যাক্স ফাইল/ফরম কোথায় পাওয়া যায় বা কিভাবে পুরূন করতে হয়? আপনি চাইলে নিজে থেকেই এটি করতে পারবেন শুধুমাত্র এই লিংকে প্রবেশ করেই?

http://nbr.gov.bd/form/income-tax/eng

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের নিয়ম অনুযায়ী আপনি যদি মাসে ১৬ হাজার টাকার সমান অর্থ আয় করেন, তবে আপনার টিআইএন থাকা আবশ্যক। এমনিতে পুরুষদের বছরে তিন লাখ, সব বয়সের নারী এবং ৬৫ বছরের ঊর্ধ্বে সব নাগরিক সাড়ে তিন লাখ এবং প্রতিবন্ধীদের বছরে সাড়ে চার লাখ টাকার ওপরে আয় না হলে কর দিতে হয় না। এর ওপর আয় হলে কর দেওয়া বাধ্যতামূলক।
যদি আপনি করসীমার নিচে থাকেন, তবে টিআইএন দেখিয়ে শূন্য বিবরণী জমা দিতে হয়। যদিও টিআইএন প্রয়োজন হয়, এমন কোনো ক্ষেত্র আপনার থাকে, যেমন গাড়ির মালিকানা বা কোনো সংগঠনের সদস্যপদ, তাহলে করযোগ্য আয় না থাকলেও টিআইএন সার্টিফিকেট থাকতেই হবে।

প্রশ্নঃ TIN ( Tax Identification Number) সার্টিফিকেট গ্রহীতার বাধ্যবাধকতা কি?

প্রশ্নঃ টিন গ্রহণকারী হিসেবে আপনার সুবিধা ও অসুবিধা কি?

সুবিধাঃ আপনি যদি একজন টিন সার্টিফিকেট ধারী হয়ে থাকেন তাহলে কর-সংক্রান্ত যেকোনো বিষয়ে আপনি নিজেই জানতে পারবেন। আপনার যদি টিন সার্টিফিকেট থাকে তাহলে কর্তৃপক্ষ কোনো বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিলে আপনি তার বিপরীতে কোনো আবেদন করার অধিকার রাখেন। কর্তৃপক্ষ সব বিষয়ে আপনাকে তথ্য প্রদানে বাধ্য থাকবে কারন আপনি একজন নিয়মিত কর প্রদানকারী ব্যক্তি।

আপনার যদি টিন সার্টিফিকেট তাহলে আপনাকে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ভাউচার প্রদান করতে বাধ্য থাকিবে। আপনার যদি টিন সার্টিফিকেট থাকে তাহলে টিন-সংক্রান্ত যথাযথ নীতিমালা থাকায় আপনি আশঙ্কামুক্ত থাকবেন। টিন গ্রহীতার বাধ্যবাধকতা কর প্রদানের নীতিমালা অনুযায়ী আপনাকে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র প্রদান করতে হবে এবং নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে বকেয়া কর পরিশোধ করতে হবে।

অপরদিকে আপনার আয় যদি দুই লাখ টাকার ওপরে হলে আপনাকে আয়ের চতুর্থাংশের এক ভাগ অগ্রিম কর প্রদান করতে হবে সরকারী ক্ষাতে। আবার আপনি যদি আপনি একজন টিন সার্টিফিকেট ধারী হয়ে থাকেন তাহলে আপনাকে/টিন গ্রহণকারীকে অবশ্যই তাঁর সম্পত্তি এবং দায়বদ্ধতা সম্পর্কে সঠিক তথ্য জানতে হবে।  টিন সার্টিফিকেট করার সময় আপনাকে অবশ্যই ব্যক্তিগত আয় সম্পর্কে সঠিক তথ্য দিতে হবে।

আপনার ব্যবসায়িক লেনদেন সম্পর্কিত সকল তথ্য সঠিকভাবে প্রদান করতে হবে।  আপনার টিন সার্টিফিকেট অনুমোদন, চুক্তিনামা হিসাবসংক্রান্ত তথ্য আইন অনুযায়ী হবে। আপনি যদি একজন ব্যবসায়ী হয়ে থাকেন তাহলে সেই ব্যবসাসংক্রান্ত বিষয়ে আপনাকে অবশ্যই টিন সার্টিফিকেট প্রদর্শন করতে হবে।

অসুবিধা: রিটান জমা না দিলে আপনার ইনকাম কালো টাকা হিসাবে গণ্য হবে।

প্রশ্নঃ নূন্যতম ট্যাক্স কত?

উত্তরঃ নূন্যতম ট্যাক্স ৫০০০ টাকা (ঢাকা ও চট্ট্রগাম), ৪০০০ টাকা (অন্যান্য সিটি কর্পোরেশন), ৩০০০ টাকা সিটি কর্পোরেশন ব্যতীত। ফ্রিল্যান্সিং এর ইনকামের কোন ট্যাক্স দিতে হবে না ২০২৪ সাল পর্যন্ত।

প্রশ্নঃ টিআইএন কীভাবে করবেন?

উত্তরঃ টিআইএন করা খুবই সহজ একটি কাজ। এর জন্য কোনো অফিসে যাওয়া লাগে না। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের ওয়েবসাইটে ফরম পাওয়া যাবে। এরপর মুঠোফোন নাম্বার, জাতীয় পরিচয়পত্র, সদ্য তোলা এক কপি ছবি দিয়ে প্রয়োজনীয় তথ্য পূরণ করলে ঘরে বসেই ই-টিআইএন নাম্বার পাওয়া যাবে। এমনকি যাঁদের আগে টিআইএন নাম্বার নেওয়া ছিল, তাঁরাও পুরোনো নাম্বার দিয়ে টিআইএন পেতে পারেন। এই সার্টিফিকেট সংরক্ষণ করতে হবে।

2 thoughts on “TIN ( Tax Identification Number) সার্টিফিকেট কি ও কেন করতে হয় এবং বৃত্তান্ত?

  1. This web site is mostly a walk-by means of for all of the information you wanted about this and didn’t know who to ask. Glimpse here, and also you’ll definitely uncover it.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Get 30% off your first purchase

X
error: Content is protected !!